তাজমহল রহস্যের পেছনের কথা

তাজমহল রহস্যের পেছনের কথা

ভারতের আগ্রায় অবস্থিত তাজমহলের ইতিহাস মুটামুটি সবাই জানি। পৃথিবীর সবচেয়ে বেশি পর্যটন আকর্ষনকারী এই স্থাপত্যের পেছনে রয়েছে অনেক অজানা তথ্য যা বেশিরভাগ সাধারণ মানুষ জানে না। আজকে আমরা তাজমহল এর এমন কিছু বিষয় নিয়ে আলোচনা করব যা শুনে আপনিও নিশ্চিত অবাক হবেন।

ঘটনা ১ (তাজমহলের ছাদের গর্ত)

তাজমহলের ছাদে একটি গর্ত আছে। এর পেছনে যে ঘটনা লুকিয়ে আছে তা হলো, সম্রাট শাহজাহান তাজমহল বানানোর পর সমস্ত শ্রমিকদের হাত কেটে নেয়ার আদেশ দেন যাতে পৃথিবীতে কেউ দ্বিতীয় আরেকটি তাজমহল বানাতে না পারে। এই ঘোষনা শুনার পর শ্রমিকেরা ক্ষুব্ধ হয়ে তাজমহলের ছাদে একটি গর্ত করে দেয়। এখনো বৃষ্টির সময় এই গর্ত বা ছিদ্র দিয়ে তাজমহলের ভিতরে পানি পড়ে।

তাজমহলের গর্ত

ঘটনা ২ (তাজমহলকে বাশ দিয়ে ঢেকে দেয়া)

তাজমহলের ছাদকে একবার বাশ দিয়ে ঢেকে দেয়া হয়েছিল। দ্বিতীয় বিশ্ব যুদ্ধের সময় এটি করা হয়েছিল যাতে শত্রুরা আকশ থেকে তাজমহলকে দেখতে না পায়। এছাড়া ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের সময়, ৯/১১ এর হামলার সময় সহ প্রায়ই তাজমহলকে নিরাপত্তার স্বার্থে বাশ দিয়ে ঢেকে রাখা হয়।

বাশ দিয়ে ঢাকা তাজমহল

ঘটনা ৩ (তাজমহলের হেলানো মিনার)

তাজমহলের চার কোনায় চারটি মিনার আছে। এই মিনারগুলো আপাত দৃষ্টিতে সোজা মনে হলেও এগুলো আসলে বাইরের দিকে ঝুকে আছে। মিনারগুলোকে এভাবে তৈরী করার পেছনের কারণ হচ্ছে, যদি কখনো ভূমিকম্পের কারণে মিনারগুলো ভেঙ্গে পড়ে তাহলে এগুলো বাইরের দিকে ভেঙ্গে পড়বে এবং মূল স্থাপত্যে কোন আঘাত করবে না।

তাজমহলের মিনার

ঘটনা ৪ (তাজমহল বিক্রি!)

আপনারা জেনে অবাক হবেন যে, তাজমহলকে একবার বিক্রি করে দেওয়া হয়েছিল। কথিত আছে যে নটোরলাল নামে এক ঠগ তাজমহলকে বিক্রি করে দিয়েছিল একবার। তবে এই ঘটনাটি কতটুকু সত্য তা একটি বিতর্কিত বিষয়।

তাজমহল বিক্রি

ঘটনা ৫ (তাজমহলের পাথর খুলে নেয়া)

তাজমহল তৈরী করতে আটাশ রকমের বিভিন্ন দামি ও মূল্যবান পাথর ব্যাবহার করা হয়েছিল, যা দেখলে অবাক হওয়ার মতো। পাথরগুলো আনা হয়েছিল চীন, তিব্বত ও শ্রীলংকা থেকে। পরবর্তীতে ইংরেজরা তাদের শাসনামলে বেশিরভাগ মূল্যবান পাথর খুলে নিয়ে চলে যায়।

তাজমহলের পাথর

ঘটনা ৬ (কালো তাজমহল)

সম্রাট শাহজাহান কালো রঙের আরেকটি তাজমহল বানাতে চেয়েছিলেন। তিনি ভেবেছিলেন মমতাজের স্মৃতির উদ্দেশ্যে তিনি যে সাদা তাজমহল বানিয়েছেন তার সোজা বিপরীতে নিজের জন্যে একটি কালো রঙের তাজমহল বানাবেন। কিন্তু তিনি তার এই স্বপ্নকে বাস্তবায়িত করতে পারেননি কারন পরবর্তীতে তার পুত্র আউরঙজেব তাকে কারাগারে ঢুকিয়ে দিয়েছিল।

কালো তাজমহল

ঘটনা ৭ (রঙ বদলানো তাজমহল)

প্রচলিত আছে যে, তাজমহল তার রঙ বদলায়। এই প্রচলিত তথ্যটি সঠিক। তাজমহলের মূল রঙ সাদা হওয়ার কারণে সূর্যের আলোর পরিবর্তনের সাথে সাথে তাজমহলের রঙ বদলায়। ভোরের আলোয় তাজমহলকে হালকা গোলাপী, সূর্যাস্তের সময় লালচে এবং পূর্ণিমা রাতে একে রুপালি দেখায়।

রুপালি তাজমহল

ঘটনা ৮ (তাজমহল এর নিচের সুড়ঙ্গ)

বর্তমান সময়ে ইন্টারনেটে কিছু খবর বেরিয়েছে যাতে বলা হয়ে থাকে তাজমহলের নিচে অনেকগুলো গোপন দরজা পাওয়া গেছে এবং এগুলো কোথায় গিয়ে শেষ হয়েছে তা কেউ জানে না এবং এর সাথে শিব মন্দিরের সংযোগ রয়েছে। এই তথ্যগুলো আসলে সম্পূর্ণ গোজব। তবে তাজমহলে একটি সুড়ঙ্গ রয়েছে যা যমুনা নদীর ধার থেকে শুরু তাজমহল বেসে গিয়ে শেষ হয়েছে। বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, এই সুড়ঙ্গটি সম্রাট শাহজাহান যমুনা নদীর ধার থকে তাজমহলে আসার জন্যে ব্যবহার করতেন।

তাজমহলের সুড়ঙ্গ

তাজমহল এমন একটি স্থাপত্য যেখানে প্রতিদিন ১২ থেকে ১৫ হাজার পর্যটক পৃথিবীর নানা প্রান্ত থেকে এসে ভিড় জমায়। আর পৃথিবীতে সম্ভবত এমন একজন ভ্রমণ পিপাসু মানুষ পাওয়া সম্ভব নয় যিনি তাজমহলের নাম অন্তত শুনে নাই। এমন একটি স্থাপত্য সম্পর্কে অজানা  কিছু তথ্য আশা করি সবার ভালো লেগেছে। কমেন্টস বক্সে আপনার মতামত লেখার অনুরোধ রইলো।

Leave a Reply

Close Menu